ভালো ল্যাপটপ কিভাবে চিনবো ! Choose Best Laptop 2023

ভালো ল্যাপটপ আমাদের অনেক ভালো সার্ভিস দিয়ে থাকে । তাই ল্যাপটপ কেনার আগে এটি সমন্ধে পুরাপুরি জেনে কেনা উচিৎ । ল্যাপটপ এমন একটি ডিভাইস যা আমরা প্রতিদিন ব্যবহার করি। ডেস্কটপ পিসি যখন সর্বোচ্চ রাজত্ব করে, তখন লোকেরা এখনো শক্তিশালী ল্যাপটপ পছন্দ করে। কারণ ভালো ল্যাপটপ এমন অনেক সুবিধা দেয় যা ডেস্কটপ কম্পিউটারে পাওয়া যায় না। কিন্তু আজ আমরা ল্যাপটপের সুবিধা নিয়ে কথা বলব না, বরং ল্যাপটপ কিনতে চাইলে আপনার কী করা উচিত বা কীভাবে একটি ভালো ল্যাপটপ চিনবেন সে সম্পর্কে আলোচনা করবো।

ভালো ল্যাপটপ
Chose Best Laptop

ভালো ল্যাপটপ কেনার আগে এসব বিষয়ে জানা জরুরী

একটি ল্যাপটপ কেনার সময় আপনাকে নিচের এসব বিষয় অবশ্যই বুঝে নিতে হবে, তাড়াহুড়োয় করে সিদ্ধান্ত না নিয়ে সহজেই একটি মানসম্পন্ন ল্যাপটপ বেছে নিতে পারেন আমার এই পরামর্শ গুলো মাথায় রেখে।

 

ভালো ল্যাপটপ এর প্রয়োজনীয় কনফিগারেশন এবং স্পেসিফিকেশন 

প্রতিটি কাজের আলাদা আলাদা বৈশিষ্ট্য এবং সেটিংস রয়েছে। ধরুন আপনি এটি বাড়িতে একা ব্যবহার করেন। অথবা আপনি একটি ছবি তৈরি বা প্রিন্ট করে কাজ করতে পারেন। এইভাবে আপনার খুব উচ্চ কনফিগারেশনের ল্যাপটপের প্রয়োজন হবে না। যাইহোক, আপনি যদি গেম খেলতে চান বা ভিডিও এডিট করতে চান তবে আপনার আরও ভাল বৈশিষ্ট্য সহ একটি ল্যাপটপ কেনা উচিত।
তাই ল্যাপটপ কেনার আগে প্রথমে আপনার প্রয়োজন অনুযায়ী এর স্পেসিফিকেশনগুলো নোট করে নিন। আপনার যদি 4GB র‍্যামের প্রয়োজন হয়, তাহলে আপনাকে 16 GB-তে অর্থ অপচয় করতে হবে না। যেখানে 16 GB প্রয়োজনসেখানে 4GB র‍্যামের ব্যবহার করলে আপনার গতি কমে যাবে। এর জন্য সমস্ত অংশের স্পেসিফিকেশনগুলি যত্ন সহকারে বিশ্লেষণ করা প্রয়োজন।

ভালো ল্যাপটপ এর প্রসেসর

বর্তমানে বাজারে দুধরনের প্রসেসর এর ল্যাপ্টপ প্রসেসর এ পাওয়া যাচ্ছে তা হল AMD ও Intel। আপনার বাজেট যদি কম হয় তাহলে এমডি আর বেশি হলে ইন্টেল কিনবেন । কারন লাপটপে প্রসেসর ভাল হলে কাজ দ্রুত হবে আর না হলে অনেক ধরনের সমস্য হবে। তাই আপনাদের ল্যাপ্টপ কেনার আগে এই বিষয়টি বেশি মাথায় রাখতে হবে।
তাছারা কোন জেনারেসন এর কিনতে চান তাও নিরধারণ করতে হবে । বাজারে CoreI3, CoreI5, CoreI7, CoreI8, CoreI10, CoreI11 & CoreI12 এসব জেনারেশন এর নাম শুনে থাকি।

অপারেটিং সিস্টেম

আমরা প্রায় বলে থাকি windows 7 ও windows 10 এটিকেই মুলত বালা হয় অপারেটিং সিস্টেম । windows 7 এটি ২০১৫ এর আগ পর্যন্ত ভালো চলতো কিন্তু বর্ত্মানে ২০২৩ এ এসে windows 10 ও 11 অনেক মানসম্মত ও আধুনিক । এখন যদি আপনি আগের সিস্টেম ব্যাবহার করেন তাহলে আপনি এখনকার ফিচার গুলো পাবেন না । তাই যে কাজের জন্যেই হোক না কেন আপনাকে যুগের সাথে তাল মিলিয়ে আপডেট জিনিস গুলো কিনতে হবে।

সকল ধরনের ক্রিকেট খেলা দেখতে   এখানে 🏏

 

বিভিন্ন সাইজের ল্যাপটপ আছে। নিয়মিত 14-ইঞ্চি ল্যাপটপগুলিকে ছোট হিসাবে বিবেচনা করা হয়, 15-ইঞ্চি ল্যাপটপগুলিকে মাঝারি হিসাবে বিবেচনা করা হয় এবং 16-ইঞ্চি ল্যাপটপগুলিকে বড় হিসাবে বিবেচনা করা হয়। আপনার প্রয়োজন অনুসারে আপনাকে এই তিনটি বিভাগের মধ্যে একটি বেছে নিতে হবে। আপনি যদি ভিডিও ইডিট করতে চান, তাহলে আপনার একটু বড় স্ক্রীনের প্রয়োজন হতে পারে।আপনার ব্রান্ড ও সাইজের জন্য দাম কম বেশি হতেই পারে।
তাই একান্ত প্রয়োজন না হলে বড় ল্যাপটপ ব্যবহার না করাই ভালো। এছাড়াও, একটি ছোট ল্যাপটপ খুব বহনযোগ্য এবং সহজেই এক স্থান থেকে অন্য স্থানে বহন করা যায়। আর যদি দীর্ঘ সময়ের জন্য আপনার একটি ল্যাপটপ সাথে রাখতে হয়, তাহলে 14 ইঞ্চি ল্যাপটপ অনেক ভাল হয়।

কিবোর্ড এবং টাচপ্যাড কেমন হতে হবে

ভালো ল্যাপটপ
Touch Pad & Keyboard

অনেকে ভুল করে বলে থাকেন যে যদি আমার লাপ্টপের যে কিবোর্ড ও টাচ প্যাড গুলর সমস্যা থাকে তাতেও সমস্যা নাই কারন আমি তো এক্সট্রা এসব ব্যাবহার করবো। । যেটা আসলে মোটেও ঠিক না কারন পরিস্থিতি অনেক সময় আম্পনার মত চলবে না তাই এসব বিবেচনা করে হলেও আপনাকে এসব যাচাই করে আপনার প্রয়োজনীয় ল্যাপটপ টি কিনতে হবে ।
আপনি যে ল্যাপটপ মডেলটি কিনছেন তার টাচপ্যাড পারফরম্যান্সও পরীক্ষা করতে পারেন এবং অনলাইনে পর্যালোচনা দেখতে পারেন। আপনি অনলাইন রিভিউ দেখে একটি ভাল ধারণা পেতে পারেন। সব বিসয়ে জেনে বুঝে একটি পন্য ক্রয় করা বুদ্ধিমানের কাজ।

ডিসপ্লের কোয়ালিটি

 

আমাদের কাজের বা মুভি দেখার জন্য ডিস্প্লে বা পর্দা অনেক মুল্যবান একটি বিষয় । আমরা যখন ল্যাপটপ নিয়ে কথা বলি, তখন ডিসপ্লের কোয়ালিটি অনেক গুরুত্বপূর্ণ। বিভিন্ন ধরনের এবং বিভিন্ন আকারের ডিসপ্লের ল্যাপটপ এখন বাজারে পাওয়া যাচ্ছে। আপনার প্রয়োজনের উপর নির্ভর করে, আপনাকে সিদ্ধান্ত নিতে হবে কোন ডিসপ্লে সাইজ আপনার জন্য সঠিক। অবশ্যই, একটি পুরোপুরি এইচডি অথবা ১৯২০*১০৮০ পিএক্সএল ডিসপ্লে হলেই মোটামুটি হবে । তবে আপনার উচিৎ এর চাইতে ভাল কেনা এতে আপনার চোখের সমস্যা হবে না ও কাজ করে মজা পাবেন।

তিন ধরনের ল্যাপটপ ডিসপ্লে আছে: টুইস্টেড নেম্যাটিক (TN), ইন-প্লেন সুইচিং (IPS), এবং অর্গানিক লাইট-এমিটিং ডায়োড (OLED)। এই প্রকারের তাদের সুবিধা এবং অসুবিধা রয়েছে। আপনি একটি ল্যাপটপ কেনার আগে, আপনার কি ধরনের পর্দা প্রয়োজন তা নির্ধারণ করতে হবে। আপনার চোখ ও কাজের কথা বিবেচনা করে ভালো মানের ডিস্প্লে সম্পন্য ল্যাপটপ কেনা ঊচিত।

লং লাস্টিং ব্যাটারি ভালো ল্যাপটপ  এর অন্যতম  গুন

আমরা সবসময় ল্যাপটপে বিদ্যুৎ ব্যবহার করে থাকি , তবুও ব্যাটারি লাইফ একটি অত্যান্ত প্রধান সমস্যা। দেখা যাচ্ছে আপনি জরুরী অবস্থায় কাজ করার সময় বিদ্যুৎ চলে গেছে, এবং আপনার চার্জ বেশিক্ষন থাকেনা কিন্তু আপনার কাজ শেষ করতে হবে সঠিক সময়ের মদ্ধে তারপর আপনাকে উঠতে হবে ৷ এই ক্ষেত্রে, আপনার ল্যাপটপে পর্যাপ্ত ব্যাকআপ ব্যাটারি থাকলে আপনি সহজেই কাজটি সম্পন্ন করতে পারবেন ৷ তাই ব্যাটারি লাইফ, ব্যাটারির ক্ষমতা এবং ব্যাটারি ব্যাকআপ অবশ্যই জানা উচিত। তারপর আপনাকে সঠিক আইডিয়া ও ব্যাটারি পাওয়ার সমন্ধে ধারনা নিয়ে কিনতে হবে।

ভালো ল্যাপটপ এর ব্র্যান্ড

ভালো ল্যাপটপ
                                                                                      Best Laptop Brand

ভালো ল্যাপটপে এর  ক্ষেত্রে ব্র্যান্ড নিশ্চিত করা একটি অন্যতম বিষয়। ভালো ধরনের ল্যাপ্টপ অনেক ভালো সেবা দিয়ে থাকে । যদি আপনি কমদামি ল্যাপটপ কিনেন তাদের আকর্ষণীয় বিজ্ঞাপন দেখে তাহলে আপনি পুরো ঠকবেন। কারন জানেনতো সস্তার মাল কেমন হয়। তাই আমি বলি এদিক সেদিক না ঘুরে ভালও ব্রান্ডের জিনিস কিনবেন তাতে আপ্নারি লাভ । নষ্ট হবে না এবং টেকসই ভালো দিবে যা আপনি চাচ্ছেন। এজন্য আপনাদের বড় ভাইগুলো কি ব্রান্ডের লাপটপ কিনে তাদের কাছে শুনবেন না হলে গুগল মামার কাছে জেনে নিবেন। বাজারে অনেক ধরনের ভালো মডেলের ল্যাপটপ পাওয়া যাচ্ছে তা হলো HP/ Dell / Asus । এ তিনটি বর্তমানে ভাল চলছে। আমার মতে দাম অ মানে এইচপি অনেক ভালো ল্যাপটপ।

বাজেট

ভালো ল্যাপটপ
টাকা দেই ল্যাপটপ নেই

সব কিছুই ভাল লাগলো এবার আসি কত টাকা দামি ল্যাপ্টপ কিনবেন । যদি আপনি মানুষ কে দেখাতে বা ভোগ বিলাশের জন্য কিনেন তাহলে ভাই আপনি বেকার এত টাকা নস্ট করিএন না । যদি কাজের জন্য কিনেন তাহলে এটি নির্ভর করে আপনি আপনার ল্যাপটপে কত টাকা খরচ করতে চান তার উপর। আপনার পছন্দ করা ল্যাপটপটি আপনার বাজেটের সাথে খাপ খায় কিনা তাও একটি প্রশ্ন। সুতরাং, কেনার আগে আপনার অনলাইনে কিছু গবেষণা করা উচিত এবং আপনার বাজেটের সাথে মানানসই ল্যাপটপ বেছে নেওয়া উচিত।

 

আমি আশা করি আজকের এই পোষ্টটি পরে আপনি বুঝতে পেরেছেন যে কোন ল্যাপটপটি আপনার জন্য উপযুক্ত।
উপরোক্ত বিষয় সমুহ বিশ্লেষণ করে, আপনি একটি ভালো ল্যাপটপ পেতে পারেন যা কর্মক্ষেত্রে ব্যবহার করা খুবই আরামদায়ক। আমি আশা করি এই নির্দেশিকা আপনাকে একটি সঠিক ল্যাপটপ বেছে নিতে সাহায্য করবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


Discover more from Trust Info

Subscribe now to keep reading and get access to the full archive.

Continue reading